বুধবার , ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

মিঠাপুকুরে প্রেমিকের সাথে শারীরিক সম্পর্কে কিশোরীর সন্তান প্রসব,পলাতক প্রেমিক

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
সেপ্টেম্বর ২০, ২০২৩ ৭:৩৪ অপরাহ্ণ

মিঠাপুকুর প্রতিনিধি 

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় প্রেমের সম্পর্কে শারীরিক বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কারণে অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২কেজি ২ গ্রাম ওজনের ছেলে সন্তান প্রসব করেন।এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক সৈকত পলাতক রয়েছেন।

বুধবার সকাল ৯টায় মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত অবস্থায় প্রসাব খানায় প্রসাব করতে গিয়ে বাচ্চা প্রসাবকালে কর্তব্যরত সেবিকা ও মিড ওয়াইফ সদস্যরা প্রসূতি বিভাগে নিয়ে গেলে ছেলে সন্তান জন্ম দেন কিশোরী।

সরেজমিনে জানা যায়- বুধবার সকাল সাড়ে আটটায় পরিবারের সহযোগিতায় ইউটিআই বা প্রসাবের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় কিশোরী। পরবর্তীতে পেটের ব্যাথা হলে মহিলা মেডিসিন বিভাগে নেওয়া হয়,সেখানে মহিলা টয়লেটে গেলে বাচ্চা প্রসবের লক্ষণ দেখে পরবর্তীতে প্রসূতি বিভাগে নিলে ফুটফুটে সুন্দর ছেলে সন্তান জন্ম দেন। কিশোরীর সাথে কথা বলে জানা যায়- দেড় বছর পূর্বে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের পুঠিমারী এলাকার সৈকত নামে এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হয়। সৈকত রংপুরে নাম না জানা একটি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র। বিভিন্ন সময়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন হলে পেটে বাচ্চা হওয়ায় ছেলেকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে বাচ্চা নষ্ট করতে বলেন। কিশোরী আরোও জানায়-একাধিকবার ছেলের বাসায় গেলে তার পরিবার কোন ধরণের সহযোগিতা কিংবা বিষয়টি কর্ণপাত করেনি। তাদের সম্পর্কের বিষয়ে ছেলের বাবা-মা দুজনেই সহ পুরো পরিবার অবগত আছেন। মেয়ের দাবী যদি ছেলে তার সন্তানের স্বীকৃতি না দেয় তাহলে তিনি আইনের আশ্রয় গ্রহণ করবেন। মেয়ের বাবা জানায়- তার সহজ সরল মেয়েকে প্রেমের জালে ফেলে অনৈতিক ভাবে মেলামেশা করায় আজ তার মেয়ে বাচ্চা প্রসাব করছে। এ বিষয় নিয়ে যদি ছেলের পরিবার কোন ধরণের সহযোগিতা না করেন তাহলে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এ ঘটনার পর আর কেউ তার মেয়েকে বিয়ে করতে রাজি হবে না বলে তিনি দাবী করেন।

মেয়ের কাছ থেকে ছেলের ফোন নাম্বার নিয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে ছেলে তার ব্যবহৃত মোবাইলটি তার ভাবিকে দিলে কথা হয় তার সাথে। সৈকতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বাড়িতে নেই বলে মোবাইল রেখে দেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রাশেবুল আলম জানায়- সকালে পেটের ব্যথা নিয়ে কিশোরী ভর্তি হয়।তার পেটে যে বাচ্চা আছে এ বিষয়ে পরিবারের লোকজন অবগত করেনি।পরবর্তীতে টয়লেটে গিয়ে প্রসূতির লক্ষণ দেখা দিলে মিড ওয়াইফ সদস্যরা প্রসূতি বিভাগে নিলে সন্তান জন্ম দেন।তবে জানা যায়- মেয়েটি অবিবাহিত।

সর্বশেষ - জাতীয়

আপনার জন্য নির্বাচিত

গোবিন্দগঞ্জ- নাকাইহাট সড়কে শাকদহ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠিত 

ভিভোর ঈদ অফারে লাখ টাকা ক্যাশব্যাক

শার্শার কথিত ডাক্তারের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক লক্ষধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

দিনাজপুরে এম আব্দুর রহিম স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

হোসেনপুর সোসাইটির পোনামাছ অবমুক্ত কার্যক্রম

মানসিক অবসাদ থেকে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

দিনাজপুর মহিলা পরিষদের উদ্যোগে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

সিদ্দিকুল আলমকে মনোনয়ন না দেয়া হলে সৈয়দপুর জাপা স্বতন্ত্র নির্বাচন করবে

শেখ ফরিদ দারুল কোরআন -হাফিজিয়া ক্বারিয়ানা মাদরাসার আয়োজনে মহান বিজয় দিবস পালিত

গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত