শুক্রবার , ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

অপহরণের চার মাস পর সুন্দরগঞ্জের সমিতির চেয়ারম্যান আতিকুর উদ্ধার

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
সেপ্টেম্বর ২২, ২০২৩ ৪:১১ অপরাহ্ণ

ষ্টাফ রিপোর্ট:: অপহরণের চার মাস পর সুন্দরগঞ্জের ধুবনী গ্রামের স্থানীয় সোস্যাল এ্যাডভান্সমেন্ট কাউন্সিল কো- অপারেটিড ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেড নামে একটি সমিতির চেয়ারম্যান আতিকুর রহমানকে দিনাজপুর জেলার কালীতলা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার খামার ধুবনী গ্রামের আতিকুর রহমানকে অপহরণের প্রায় চার মাস পর পরিবারের লোকজন তাকে খুঁজে পান। বর্তমানে আতিকুর রহমান ঢাকার একটি মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি বলে জানান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (পিবিআই) উপ-পরিদর্শক হুমায়ুন কবীর।

 

স্বজনরা জানান, অপহৃত আতিকুর রহমান স্থানীয় সোস্যাল এ্যাডভান্সমেন্ট কাউন্সিল কো অপারেটিড ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেড নামে একটি সমিতির চেয়ারম্যান ছিলেন। চলতি বছরের ২৪ মে সমিতির কাজে অফিসে যাওয়ার পথে মজুমদার-নলডাঙ্গা সড়কের মাঝে থেকে জোড়পূর্বক সিএনজি চালিত অটোনিকশায় করে আতিকুর রহমানকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে আতিকুরের ব্যবহৃত ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তার কোনো খোজ মিলছিল না। সম্প্রতি শ্যামলী পরিবহনের এক সুপার ভাইজার দিনাজপুর বাস ষ্টান্ডে আতিকুর রহমানকে দেখতে পান। পরে তিনি আতিকুরের বাবাকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানান। পরে স্বজনরা গিয়ে দিনাজপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি(জিডি) করে আতিকুরকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার একটি মানসিক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

 

এর আগে, অপহরের পর চলতি বছরের ৮ জুন আতিকুরের বাবা আবদুল জলিল সরকার বাদি হয়ে গাইবান্ধা আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সোস্যাল এ্যাডভান্সমেন্ট কাউন্সিল কো অপারেটিড ক্রেডিট ইউনিয়ন লিমিটেড সমিতির মাঠকর্মীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে অপহরণের অভিযোগ আনা হয়।

 

মামলা সুত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি দি কো অপারেটিড ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অফ বাংলাদেশ লিঃ (কালব) এর সঙ্গে আতিকুর রহমানের ঋণ কার্যক্রম নিয়ে মনোমালিন্য চলছিল। কালব সমিতির ভাইস চেয়ারম্যান ফাহমিদা সীমা এ নিয়ে আতিকুর রহমানকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। এরপর আতিকুর রহমানকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

 

মামলার পর ২০ জুন আদালত মামলাটি তদন্ত করতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কে নির্দেশ দেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (পিবিআই) উপ-পরিদর্শক হুমায়ুন কবীর বলেন, সম্প্রতি অপহৃত আতিকুর রহমানকে দিনাজপুরের কারিতলা এলাকায় পেয়েছে বলে জানান তার স্বজনরা। বর্তমানে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। মামলা তদন্ত চলছে।

 

ফাস্ট বাংলা/

সর্বশেষ - জাতীয়

আপনার জন্য নির্বাচিত

গাইবান্ধায় অবৈধ বালু ব্যবসায়ী কর্তৃক তিন সাংবাদিকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন 

গাইবান্ধায় বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে ও কাউন্সিল -২০২৩ অনুষ্ঠিত

সাদুল্লাপুরে সমাজকল্যাণ পরিষদের পক্ষ থেকে নিবন্ধিত সেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাঝে অনুদানের চেক প্রদান

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের যাত্রা নিরাপদ করতে কঠোর অবস্থানে সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ

দিনাজপুর জেলা বিএনপির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত

হরিনাবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নজর কাড়ছে নান্দনিক সবজি বাগান। 

বিএসএফ দুই বাংলাদেশীকে পিটিয়ে ফেলে যায়।

দিনাজপুরে ৪২ কেজি গাঁজার চালা আটক

মদনে ধান কাটা উৎসবে জেলা প্রশাসক

গোবিন্দগঞ্জে নিজ ঘর থেকে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার