রবিবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭৭ মিলিলিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২৩ ১১:৩০ অপরাহ্ণ

মো:মোমিনুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টার(দিনাজপুর)

টানা ভারী বৃষ্টিতে দিনাজপুরের জনজীবন থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এছাড়াও জেলার প্রত্যেকটি নদীর পানি বিপদসীমার খুবই কাছাকাছি। যা আগামী ৪ থেকে ৫ ঘণ্টায় বিপদসীমা অতিক্রম হওয়ার আশংকা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুর জেলায় বৃষ্টির পরিমাণ রেকর্ড করা হয়েছে ১৭৭ মিলিমিটার। আরও ৫দিন চলবে এ বৃষ্টি জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিতে দিনাজপুর শহরের অধিকাংশ এলাকার রাস্তা পানিতে হাঁটু পানিতে নিমজ্জিত। আবার অনেক নিচু এলাকার বাড়ি-ঘরে প্রবেশ করেছে বৃষ্টির পানি। এতে দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে শহরের জনজীবন। বিশেষ করে শহরের উপশহর, বালুবাড়ি, শেখপুরা, চাউলিয়াপট্টি, লালবাগ, রামনগর, বালুয়াডাঙ্গা, ঈদগাহ বস্তি এলাকার রাস্তাগুলো বৃষ্টির পানিতে ডুবে গেছে। ঘর থেকে বের হতে পারছেন না কর্মজীবী মানুষেরা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারেনি শিক্ষার্থীরা।

এদিকে, টানা বৃষ্টিতে দিনাজপুরে প্রধান তিনটি নদী আত্রাই, ইছামতি ও পুনর্ভবা নদীর পানি বিপদসীমার খুবই কাছাকাছি রয়েছে। এতে নদীর তীরঘেষা নিচু এলাকাগুলো তলিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। তবে দিনের মধ্যে নদীগুলোর পানি বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই হতে পারে বলে জানায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

অন্যদিকে, দিনাজপুরের আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার খুব কাছাকাছি থাকায় নদীর তীরবর্তী নিম্নাঞ্চল এলাকার অনেকাংশে ডুবে গেছে। এছাড়াও শহরের বুক দিয়ে বয়ে যাওয়া পুনর্ভবা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী সংলগ্ন শহরের নিম্নাঞ্চল দপ্তরীপাড়া, বালুয়াডাঙ্গা,হঠাৎপাড়া, লালবাগ, রাজাপাড়ার ঘাট, মাঝাডাঙ্গা, বাঙ্গীবেচা ব্রীজ এলাকা, নতুনপাড়ার প্রায় তিন হাজারের বেশি মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ার আশংকা রয়েছে।

দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর জেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া পুনর্ভবা, আত্রাই ও ইছামতি নদীর পানি বিপদসীমার খুব কাছাকাছি প্রবাহিত হচ্ছে। আজ রবিবার সকাল ৯টায় দিনাজপুর শহরের পাশ দিয়ে প্রবাহিত পুনর্ভবা নদীর পানি বর্তমানে ৩১ দশমিক ৯৬ সে. মিটারে প্রবাহিত হচ্ছে। পুনর্ভবা নদীর বিপদসীমা ৩৩ দশমিক ৫০০ মিটার। আত্রাই নদীর ৩৯ দশমিক ১৫ সে.মিটার বিপদসীমার বিপরীতে বর্তমানে ৩৭ দশমিক ৫৫ সে.মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়াও ইছামতি নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে ২৭ দশমিক ৮৫ মিটারে, যদিও এই নদীর বিপদসীমা হচ্ছে ২৯ দশমিক ৫০০ মিটার।

দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মো. সিদ্দিকুর জামান নয়ন সময়ের আলোকে জানান, আজ জেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তিনটি নদীর মধ্যে আত্রাই আর পুনর্ভবা নদীর পানি বিপদসীমার খুব কাছাকাছি প্রবাহিত হতে দেখা গেছে। তবে আজ দিনের আগামী ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা পর ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে নদীগুলোর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করার আশঙ্কা রয়েছে।

বৃষ্টিতে কীছু পুকুররে পানিতে ভরে গিয়ে সব মাছ বাইরে চলে গেলে নদী, খাল, বিলে মাছ ধরার ধুম পরেছে।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান আসাদ আজ রবিবার সময়ের আলোকে বলেন, দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭৭ মিলিলিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। এই বৃষ্টি আগামী ৪ থেকে ৫ দিন আরও চলবে।

সর্বশেষ - আইন আদালত

আপনার জন্য নির্বাচিত

ঈদুল আযহা’র শুভেচ্ছা জানালেন নেত্রকোণা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি দেওয়ান রানা

সাদুল্লাপুরে কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের উদ্যোগে পার্চিং উৎসব পালিত

সাদুল্লাপুর উপজেলার প্রধান শিক্ষকদের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

যশোরে নির্বাচনী মাঠে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ১৬ হাজার সদস্য, ভোট কেন্দ্রে ‘বডি ক্যামেরা’

জেলা ক্রীড়া অফিস আয়োজনে ভলিবল খেলা অনুষ্ঠিত

যশোর জেনারেল হাসপাতারে শিশু ওয়ার্ডে ২০ শয্যার বিপরীতে ভর্তি প্রায় তিনগুণ

গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাহী’কে সভাপতি এবং হারুনকে সম্পাদক করে, দিনাজপুরে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের নয়া কমিটি

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কবি নজরুলের প্রয়াণ দিবস পালিত

দিনাজপুর আদালতে আত্মসমর্পণ করতে গিয়ে, কারাগারে মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ।

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশ