মঙ্গলবার , ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

বাঁশ চালান দিয়ে কিশোরকে চোর সাব্যস্ত,ভিডিও সামাজিক যোগাযোগে দেওয়ায় আত্মহত্যার চেষ্টা 

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২৩ ১:৩৭ অপরাহ্ণ

মোঃ ইমরান হোসেন, স্টাফ রিপোর্টারঃ 

বরগুনার তালতলীতে সৌর বিদ্যুৎ এর ব্যাটারি চুরির ঘটনায় কবিরাজ(ফকির) থেকে বাঁশ পড়া আনা হয়। পরে এলাকাবাসীর সামনে দেওয়া হয় বাঁশ চালান। এই বাশঁ চালানের ভিডিও করে ফেজবুকে ছাড়ে হাফিজুর নামের এক যুবক। এতে চুরির অপবাদ নিয়ে ঘৃনায় চোর সাব্যস্ত হওয়া রবিউল আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।শুক্রবার সকালে উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের চরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে ,উপজেলার চরপাড়া এলাকার কামাল তালুকদারের নিজ ঘর থেকে সৌর বিদ্যুৎতের ব্যাটারি চুরি হয় গত তিন দিন আগে। এ জন্য থানায় কোনো অভিযোগ না দিয়ে আদিম এই কুসংস্কারের সহায়তায় চোর শনাক্ত করার জন্য আমতলী উপজেলার কবিরাজ হোসনেয়ারা বেগমের থেকে বাঁশ পড়া আনেন কামাল তালুকদার। এই বাঁশ পড়া দেওয়ার জন্য একজন তুলা রাশির লোক আনা হয়। পরে এলাকার প্রায় ৫ শতাধিক লোকের সামনে বাঁশ চালান দেওয়া হয়। এতে বিরোধ থাকা জালাল ফরাজীর ছেলে রবিউলকে টার্গেট করে চোর শনাক্ত করা হয়। এই ঘটনাটি সম্পূর্ণটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ ফেজবুকে ছাড়েন ঐ এলাকার হাফিজুর নামের এক ব্যক্তি। বিষয়টি ভাইরাল হলে রবিউল চুরির অপবাদ নিয়ে ঘৃণায় ঘরে থাকা বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা চালায়। পরে পরিবারের সহযোগিতায় বেঁচে যায় রবিউল।

রবিউল বলেন, আমি জেলে নদীতে মানুষের সাথে কাজ করি। বাঁশ চালান দেখতে যাই আমি। তবে আমাকেই চোর বানানো হয়েছে। কামাল তালুকদারের সাথে আমার ঝামেলা আছে। আমি এ অপবাদ নিয়ে কি ভাবে বেঁচে থাকবো তাই আত্মহত্যা করতে চেয়েছি।

এবিষয় কামাল তালুকদার বলেন, আমার ব্যাটারি চুরি হয়েছে এ জন্য আমি বাঁশ পড়া এনে তা চালান দেই। তাতে রবিউল চোর শনাক্ত হয়। চুরির বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ দিয়েছিলেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,থানায় কোনো অভিযোগ করিনি।

এবিষয়ে ফেজবুকে ভিডিও ছাড়ার বিষয়ে হাফিজুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সবাই বাঁশ চালানের ভিডিও ছেড়েছে তাই আমিও ছেড়েছি।

কবিরাজ(ফকির) হোসনেয়ারা বেগম বলেন, আমি বাঁশপড়া দিতে চাইনি। তারা জোড় করে নিছে। আমি জীবনেও বাঁশ পড়া দিবো না বলে ফোন কেটে দেয়।

তালতলী থানার ওসি তদন্ত রনজিৎ কুমার সরকার বলেন,চুরির কোনো বিষয়ে অভিযোগ কেউ করেনি। তাছাড়া বাঁশ চালান দেওয়ার আইনগত কোনো ভিক্তি নেই। তিনি আরও বলেন, রবিউলের পরিবার থেকে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ - জাতীয়

আপনার জন্য নির্বাচিত

দিনাজপুর জেলা পুলিশ কর্তৃক কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২৩ উদযাপন

গভীর রাতে পরকীয়া করতে নারীর ঘরে মেম্বার,গাছে বেঁধে গণধোলাই। 

স্বামী পরিত্যক্তা নারী ধর্ষণ,লম্পট শহিদুল দিয়েছিল চম্পট”অবশেষে গ্রেফতার।

পলাশবাড়ীতে ঢাকা রংপুর মহাসড়কে অবরোধ সমর্থনে বিএনপির মিছিল 

যশোরে মিলন ও মোহিত নাথসহ তিনটি আসনে ৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

গোবিন্দগঞ্জে মাই টি়ভির ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত 

মদনে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চলছে রমরমা নিয়োগ বাণিজ্য

দিনাজপুরে নদীতে গোসল করতে নেমে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

পলাশবাড়ীতে শিশু কন্যাকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ লম্পট হায়দার পলাতক 

মদনে দেওয়ান শাহীন স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে বাপ্পি একাডেমী চ্যাম্পিয়ন