বুধবার , ৪ অক্টোবর ২০২৩ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

পলাশবাড়ীতে কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে মোগল আমলের ভাঙ্গামস‌জিদ।

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
অক্টোবর ৪, ২০২৩ ১১:২২ অপরাহ্ণ

রুমা খাতুন গাইবান্ধা : 

 

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়‌নের  রাইতি নড়াইল গ্রামবাসীর সহযোগিতায় নিজ রূপ ফিরে পেয়েছে কয়েকশত বছরের প্রাচীন মসজিদের স্থাপনা, যা এলাকায় ভাঙ্গা-মসজিদ না‌মে পরিচিত।

গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী আঞ্চলিক মহাসড়ক থেকে ঢোলভাঙ্গা-আমলাগাছি বাজারমুখী রাস্তা দিয়ে আধা কিলোমিটার দূরে কাঁচা রাস্তার পূর্ব দিকে রাইতি নড়াইল গ্রামে গে‌লে দেখা মিল‌বে এই দৃ‌ষ্টি নন্দন মস‌জিদ‌টির। এখা‌নে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ের পাশাপাশি বর্তমানে এই স্থাপনাটিকে গ্রামবাসী ঈদগাহ মাঠ হিসাবে ব্যবহার করেন। ওই গ্রামের রফিক মিয়া জানান মসজিদ টি আমাদের গর্ব, সুরুজ মিঞা বলেন এখানে দুরের লোকজন মসজিদ টি দেখতে আসে,তখন আমরা খুব গর্ববোধ করি।

২০ শতাংশ জমির উপর এই  মসজিদটি অবস্থিত, যার মধ্যে তিন শতাংশ জমির উপর রয়েছে মূল ভবনটি। বা‌কিটা ঈদগাহমাঠ ও কবরস্থান। প্রতিদিনই পলাশবা‌ড়ীসহ আশেপাশের কয়েকটি থানার লোকজনের সমাগম ঘটে এই স্থান‌টি‌তে ।

ভাঙ্গা-মসজিদটি নিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকম কল্পকাহিনী প্রচলিত। লোকমুখে প্রচার রয়েছে যে, ভাঙ্গামসজিদ একটি গায়েবি মসজিদ। গ্রামের অধিবাসীদের ধারণা, মসজিদের মূল ভবনটি মাটির নিচ থেকেই উঠে এসেছে। ভাঙ্গামসজিদের নামাজ পড়ে কোনো কিছু মানত করলে আল্লাহর রহমতে সেই আশা পূরণ হয় বলেও জানান স্থানীয়রা। সেই বিশ্বাসেই দিন দিন মসজিদে আগত অতিথিদের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে।

বেতকাপা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান (মোস্তা) ও স্থানীয় অভিজ্ঞজনদের ধারণা, দৃ‌ষ্টি নন্দন এই মসজিদটি মোগল আমলে নির্মিত। সেই হিসেবে প্রায় ৪শ’ বছরের পুরানো মসজিদটি রাইতি নড়াইল গ্রা‌মের কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে। কালের আবর্তে এই স্থাপনার অনেক কিছুই নষ্ট বা হারিয়ে গেছে। তবে পরবর্তীকালে এই মসজিদটি সংস্কার করা হয়। প্রাচীন এ স্থাপনাটি বর্তমানে রক্ষণাবেক্ষণ করা হচ্ছে গ্রামবাসীর সার্বিক সহযোগিতায়। তবে আশ্বাস স্থানীয় চেয়ারম্যান সার্বিক-সহযোগিতা করার।

সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে নান্দনিক নির্মাণশৈলীর এই মসজিদটিকে ঘিরে একটি লাভজনক পর্যটন কেন্দ্র গড়ে উঠতে পারে। এমনটাই ধারণা স্থানীয় স‌চেতন মহ‌লের।

সর্বশেষ - জাতীয়

আপনার জন্য নির্বাচিত

মানিকুল হত‌্যাকান্ডের মূল হোতা গ্রেফতার  

সাদুল্লাপুরে ধর্ষণের চেষ্টা ও ধর্ষণ পৃথক দুটি মামলায় দুজনকে গ্রেফতার

সাদুল্লাপুরে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে ব্রি-৭৫ ধানের চারা রোপনের উদ্বোধন 

বনাঢ্য আয়োজনে চাটখিল উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত 

সাবেক এমপি আখতারুজ্জামান জেলহাজতে

ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের  একাডেমিক কনফারেন্স ও ফ্যামিলি গেট টুগেদার 

গড্ডিমারী ও হাতীবান্ধা বাসিকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল

আওয়ামীলীগের দলীয় অফিস উদ্বোধন করেন এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি

দিনাজপুরে ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ’র উদ্বোধন

সাদুল্লাপুরে উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্যোগে মাঠ দিবস উদযাপন