সোমবার , ২৯ মে ২০২৩ | ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

সাঘাটায় খন্দকার ফিজিওথেরাপি সেন্টারে পাচ্ছেন ডিজিটাল সেবা।

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
মে ২৯, ২০২৩ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

শাহাবুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়ায়

খন্দকার ফিজিওথেরাপি সেন্টারে অত্যধনিক ডিজিটাল ফিজিওথেরাপির সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন প্রতিষ্ঠানটি,

ফিজিও (শারীরিক) এবং থেরাপি (চিকিৎসা) শব্দ দুটি মিলে ফিজিওথেরাপি বা শারীরিক চিকিৎসা। ফিজিওথেরাপি আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞানের এক অন্যতম এবং একটি অপরিহার্য শাখা। শুধু ঔষধ সব রোগের পরিপূর্ণ সুস্থতা দিতে পারে না। বিশেষ করে বিভিন্ন মেকানিক্যাল সমস্যা থেকে যে সব রোগের সৃষ্টি হয়, তার পরিপূর্ণ সুস্থতা লাভের উপায় ফিজিওথেরাপি।

 ফিজিওথেরাপি হলো একটি আধুনিক ও বিজ্ঞানসম্মত চিকিৎসা পদ্ধতি, যেখানে একজন ফিজিওথেরাপিস্ট রোগীর সব কথা শুনে-বুঝে, রোগীকে ভালোভাবে দেখে এবং প্রয়োজনে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে রোগীর সঠিক রোগ, আঘাত বা অঙ্গ বিকৃতির ধরন নির্ণয় করে রোগীকে বিভিন্ন ধরনের ফিজিক্যাল মেথড যেমন ম্যানুয়াল টেকনিক, তাপ ও ব্যায়ামের মাধ্যমে চিকিৎসা করে থাকেন।

খন্দকার ফিজিওথেরাপিতে অভিজ্ঞ ডাক্তার দ্বারায় ফিজিওথেরাপিস্ট ডিজিটাল মেশিনে থেরাপি দেওয়া হয়।

 যে সকল ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা দেওয়া হয়, ঘাড়,কোমর,হাঁটু, পিঠ,গোড়ালী ব্যাথা,হাত ও পায়ে ঝিমঝিম,জিবিএস,স্ট্রোক, প্যারালাইসিস,প্রতিবন্ধী শিশু,মুখ বাকা,

এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের হাঁটুর ব্যথায় এবং স্পোর্টস ইনজুরিতে ফিজিওথেরাপি বিশ্বব্যাপী একটি স্বীকৃত চিকিৎসাব্যবস্থা। সকল চিকিৎসা অভিজ্ঞ ডাক্তার দারায় পরিচালিত,

 বিশেষ সুবিধা সমুহঃ সীমিত খরচে ফিজিওথেরাপি সেবা প্রদান। গরীব ও অসহায় রোগীদের ফ্রি ফিজিওথেরাপি প্রদান। মহিলাদের জন্য মহিলা ডাক্তার দ্বারায় ফিজিওথেরাপি প্রদান। হোম সার্ভিস। সুন্নতি হিজামা/কাপিং থেরাপি দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা সাম্প্রতিক কোনো চিকিৎসা ব্যবস্থা নয়। হিপোক্রেটাস সেই প্রাচীন গ্রিসে ম্যাসেজ ও ম্যানুয়াল থেরাপি দ্বারা ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার পরিচয় করিয়েছিলেন। খ্রিস্টপূর্ব ৪৬০ সালে হেক্টর ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার একটি শাখা ব্যবহার করতেন যাকে বর্তমানে হাইড্রোথেরাপি বলা হয়। যতটুকু জানা যায়, ১৮৯৪ সালে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার বর্তমান ধারা অর্থাৎ ম্যানুয়াল থেরাপি, ম্যানিপুলেটিভ থেরাপি, এক্সারসাইজ থেরাপি, হাইড্রোথেরাপি, ইলেক্ট্রোথেরাপি ইত্যাদি প্রবর্তন করা হয়।

প্রথমে নিউজিল্যান্ডে ১৯১৩ এবং আমেরিকাতে ১৯১৪ সালে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা শুরু হয়।

বাংলাদেশে ফিজিওথেরাপির যাত্রা অনেকদিন পরে। বিশদভাবে ও একাডেমিকভাবে ১৯৭২ সালে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসনের জন্য বিদেশি ফিজিওথেরাপিস্ট দ্বারা স্বাধীন বাংলাদেশে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার সূচনা হয়। এর পরে ফিজিওথেরাপির ব্যবহার এ দেশে উত্তর উত্তর বাড়তেই থাকে। এর গুরুত্ব উপলব্ধি করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা অনুষদের অধীনে স্নাতক ডিগ্রি চালু করা হয়। বর্তমানে নিটোর, সিআরপি, পিপলস্‌ ইউনিভার্সিটি, গণবিশ্ববিদ্যালয়, স্টেট কলেজ অব হেলথ সায়েন্সসহ বেশ কয়েকটি ইন্সটিটিউটে ফিজিওথেরাপি গ্রাজুয়েশন কোর্স চালু রয়েছে।

বাংলাদেশে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৯০ হাজার মানুষ ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার ওপর নির্ভরশীল। সরকারি হাসপাতালগুলোতে ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ নিয়োগ এবং স্বতন্ত্র কোনো নিয়ন্ত্রক সংস্থা না থাকায় শতকরা প্রায় ৯০ ভাগ সঠিক ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা পায় না এবং অপচিকিৎসার শিকার হন।

 যোগাযোগের ঠিকানাঃ আব্দুল গণি প্লাজা ইসলামী ব্যাংকের নিচতলা,বোনারপাড়া,সাঘাটা,গাইবান্ধা।

মুঠোফোন – ০১৭১৯-৩০৭৭১০,০১৯৮০-১৭৫৯৬৯।

সর্বশেষ - আইন আদালত

আপনার জন্য নির্বাচিত

নামাজ পরার সময় হারিয়ে যাওয়া রিকশা চালক রমজান আলী পেলেন জেলা পরিষদ থেকে সহযোগিতা।

গাইবান্ধায় হরতালের সমর্থনে পিকেটিংকালে গ্রেফতার- ৫

মিঠাপুকুরে বাসের চাকা পামচার হয়ে উল্টে নিহত-১

মাদারীপুরে জমে উঠেছে শীতবস্ত্রের বেচাকেনা,নিম্নবিত্তের ভিড় ফুটপাতের দোকানে

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সাঘাটা-ফুলছড়ির শীতার্ত মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন আল মামুন

বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার শীতবস্ত্র দিনাজপুরে বিতরণ করলেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

প্রথম জীবন

গোবিন্দগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত 

দিনাজপুরে আমরা একাত্তর সংগঠনের মানববন্ধন

কনস্টেবল নিয়োগ বাণিজ্যেঃ সাবেক পুলিশ সুপারসহ ৬জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা