বুধবার , ১৫ মে ২০২৪ | ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. আইন আদালত
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ইতিহাস ও ঐতিহ্য
  4. কৃষি
  5. ক্যাম্পাস
  6. জাতীয়
  7. তথ্য ও প্রযুক্তি
  8. নির্বাচনী সংবাদ
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. মুক্ত মন্তব্য
  12. রাজনীতি
  13. সম্পাদকীয়
  14. সাক্ষাৎকার
  15. সারাদেশ

২কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সড়কে ১মাসের মধ্যেই ফাটল

প্রতিবেদক
FIRST BANGLA NEWS
মে ১৫, ২০২৪ ৬:১৮ অপরাহ্ণ

নাজমুল হাসান, মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

 মাদারীপুর সদর উপজেলার মহিষেরচর এলাকায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সড়ক নির্মাণের এক মাসের মধ্যে ফাটল দেখা দিয়েছে। হুমকির মুখে পড়েছে নির্মাণাধীন সাড়ে ৩ কিলোমিটার সড়ক। এতে করে নষ্ট হচ্ছে রাষ্ট্রীয় সম্পদ।

মাদারীপুর সদর উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, এডিপি’র অর্থায়নে মাদারীপুর সদর উপজেলার মহিষেরচর লঞ্চঘাট থেকে জাফরাবাদ সড়কের সাড়ে ৩ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করা হয় এক মাস আগে। সড়কের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয় প্রায় দুই কোটি টাকা। সড়কের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার এক মাসের মধ্যে সড়কের বিভিন্ন স্থানে ফাটল দেখা দিয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতেই কোনো কোনো স্থানে কার্পেটিং উঠে এজিং ভেঙে গেছে। কাজে নিম্নমানের ইট, খোয়া, পাথর, বালু ব্যবহার করার কারণে বিভিন্ন স্থানে সড়ক উঁচু-নিচু হয়ে দেবে গেছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

এ ছাড়াও পাকা সড়কের দুই পাশে কমপক্ষে ৩ ফুট মাটি থাকার কথা। অথচ অধিকাংশ সড়কেই এই নিয়ম মানা হয়নি। সরজমিন দেখা গেছে, সড়কের বিভিন্ন অংশের এজিং ভেঙে খালের ভেতরে চলে গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, কয়েকদিন আগে একটি ট্রাক গেছে। সেই চাকায় সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে গেছে।

মূলত নিম্নমানের কাজের কারণেই ভেঙে গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা রাকিবুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন আগে নির্মাণ করছে সড়ক অথচ এখনই ভেঙে গেছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। কর্তৃপক্ষের উচিত তদন্ত করে ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া। এভাবে রাষ্ট্রীয় সম্পদ নষ্ট করা ঠিক নয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যবসায়ী বলেন, ‘সড়ক নির্মাণের কয়েকদিন পর বিভিন্ন স্থান গর্ত হয়ে দেবে গেছে। অনেক স্থান উঁচু-নিচু হয়ে গেছে। কাজ করার সময় ঠিকাদার সঠিক নিয়মে ইট-বালু ব্যবহার করেননি। পুরাতন ইট তুলে তার উপরে বিটুমিন (পিচ) ঢেলে রোলার দিয়ে ঠিকমতো সমান না করেই কার্পেটিং করায় রাস্তার এই অবস্থা হয়েছে।’

সড়কের ঠিকাদার মো. খোকন এই বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি। তিনি উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেন।

এলজিইডি’র মাদারীপুর সদর উপজেলা প্রকৌশলী মনোয়ার হোসেন জানান, যেসব স্থানে ভেঙে গেছে সেখানে মাটি ফেলে মেরামত করা হবে। নিম্নমানের কাজের অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেছেন।

সর্বশেষ - জাতীয়

আপনার জন্য নির্বাচিত

পবিপ্রবিতে বিশ্বগনমাধ্যম দিবস পালিত 

গোবিন্দগঞ্জে ফুলবাড়ী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য নবায়ন ফরম জমা প্রদান অনুষ্ঠিত 

গোবিন্দগঞ্জে মহিমাগঞ্জ রেল স্টেশনে ঢাকাগামী বুড়িমাড়ী এক্সপ্রেস যাত্রা বিরতির দাবীতে রেলমন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান

দীর্ঘদিনেও অবসরোত্তর পাওনা টাকা না পাওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণে

গাইবান্ধায় প্রাইভেটকারে ৪০ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

পলাশবাড়ীতে শিশু কন্যাকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ লম্পট হায়দার পলাতক 

সাদুল্লাপুর গার্লস ডিগ্রি কলেজ এর বার্ষিক ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

চাটখিলে টাকার অভাবে ক্যান্সার আক্রান্ত রিজভীর চিকিৎসা বন্ধের পথে

কোকোডাস্ট পদ্ধতিতে চারা উৎপাদনে সাফল্য

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে বৃদ্ধা খুন, আটক-৩